মোঃ রায়হান মাহামুদ, গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি।

গাজীপুরের কালীগঞ্জ বক্তারপুর ইউনিয়নের আটলাব এলাকায় এক মাদ্রাসা ছাত্রী(১৫) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত বখাটে।

সোমবার (২ আগস্ট) সকালে কালীগঞ্জ থানায় ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

ভুক্তভোগী আটলাব এলাকার এক কৃষকের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত অনিক ভূঁইয়া (২১)। সে আটলাব পূর্ব পাড়া এলাকার আকবর ভূঁইয়ার ছেলে। অনিক ভূঁইয়া এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত।

বক্তারপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য নুরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা বলেন, ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী মাদ্রাসায় আসা-যাওয়া পথে পূর্বেই উত্যক্ত করতো বখাটে অনিক। গত শুক্রবার বিকেলে ভুক্তভোগীকে বাড়ির পাশে একা পেয়ে স্থানীয় আউয়ালেরটেক এলাকার একটি জঙ্গলে নিয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষণ করে অনিক। একপর্যায়ে ভুক্তভোগীর ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে গেলে বখাটে অনিক পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম বলেন, ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে সোমবার সকালে মামলা দায়ের করেছেন [মামলা নাম্বার ২(৮)২১]। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত অনিক পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুল ইসলাম।

তিনি আরো বলেন, ভুক্তভোগীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে