সর্বশেষ আপডেট

বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দীর্ঘদিন দেশের বাইরে থাকার পর আজ বাংলাদেশ সময় ভোরে নিউ ইয়র্ক থেকে বাংলাদেশের বিমানে উঠছেন দেশ সেরা এই ক্রিকেটার।

রাতে ঢাকার হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে সাকিবের বিমান। ইমিগ্রেশন শেষ করতে করতে পার হয়ে যাবে মধ্যরাত।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের একেবারে শুরুতেই যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রী-কন্যার কাছে চলে যান সাকিব। সেখানে তিনি সঙ্গ দেন সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর। পরে, সাকিব হলেন দ্বিতীয় কন্যার বাবা।

দেশে ফিরে সাকিব মাঠে ফেরার প্রস্তুতি শুরু করবেন,২৯ অক্টোবর থেকে সব ধরনের ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ডে অংশ নিতে পারবেন তিনি। ২৮ অক্টোবর শেষ হবে তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ।

অক্টোবর-নভেম্বরে শ্রীলঙ্কার মাটিতে তিনটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই তাকে দলে পাওয়া যেতে পারে। তবে দল শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার সময়ও নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে বলে সাকিব দলের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা যেতে পারবেন না, যেতে হবে পৃথকভাবে।

ক্রিকেট বোর্ড চাচ্ছে, সাকিব নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পরপরই যেন তিনি মাঠে ফিরতে পারেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেই যেন ফিরতে পারেন, সে লক্ষ্যে এখন থেকেই অনুশীলন শুরু করে দেবেন সাকিব। নিজেকে পুরোপুরি প্রস্তুত করতে তিনি অনুশীলন করবেন বিকেএসপিতে।