সর্বশেষ আপডেট

২০২০ সালটা যেন বড়ই অপয়া। বছরের গোড়া থেকেই একের পর এক খারাপ খবর পাচ্ছে মানুষ। কখনও করোনা ভাইরাস মানুষকে গৃহবন্দি করে দেয়, কখনও আমফানে ঘরছাড়া হয় মানুষ। কখনও আবার জীবিকা কেড়ে নিয়ে মানুষকে নিঃস্ব করে দেয় লকডাউন। এসবেরই মধ্যে একের পর এক শিল্পীকে হারাতে শুরু করে ভারত। বিশেষ করে মৃত্যু যেন বলিউডের পিছু ছাড়তে চাইছে না। ইরফান খান, ঋষি কাপুর, সুশান্ত সিং রাজপুত… কত মৃত্যুই না দেখল সিনেপ্রেমীরা। তাই এই বছরটাকেই ইতিহাসের পাতা থেকে মুছে ফেলতে চান নেটিজেনরা।

টুইটারে সম্প্রতি একটি হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ডিং হয়েছে। ‘delete’ হ্যাশট্যাগের সঙ্গে 2020 জুড়ে ‘#delete 2020’ দিয়ে অনেকেই বলেছেন, এই বছরটা মুছে দেওয়ার কি কোনও উপায় নেই? এপ্রিল মাসেই প্রয়াত হয়েছেন ইরফান খান (Irrfan Khan)। দীর্ঘদিন ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছিলেন তিনি। কিন্তু সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে এসেছিলেন। যোগ দিয়েছিলেন কাজে। তারপর আচমকাই এই দুঃসংবাদ। এই ঘটনার ২৪ ঘণ্টা কাটে না কাটতেই খবর আসে পরপারে পাড়ি দিয়েছেন ঋষি কাপুরও। তাঁর ইতিহাসও খানিকটা এক। তিনিও ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধে জয়ী হয়েছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। দুই তারকার হঠাৎ মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এল সিনেমা প্রেমীদের মনে। ‘ডি ডে’ ছবির একটি বিখ্যাত দৃশ্য যেখানে পাশাপাশি রয়েছেন ইরফান আর ঋষি, তা শেয়ার করে শোকবার্তায় ভরে উঠলল নেটদুনিয়া। কিন্তু তখন কে জানত? সামনের আরও দুঃসংবাদ অপেক্ষা করছে?

এই দুই তারকার শোক কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই এল সংগীত পরিচালক সাজিদ খানের মৃত্যুসংবাদ। ১ জুন করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন তিনি। এই মৃত্যুটাও অত্যন্ত আকস্মিক। কিছুদিন আগেই তিনি সালমান খানের মিউজিক ভিডিওর জন্য গান লেখেন। সৌভ্রাতৃত্বের বার্তাবাহক সেই গানটি মুক্তি পেয়েছিল ঈদে। তারপরই দুঃসংবাদ। সাজিদ চলে যাওয়ার দিন দুই পরই প্রয়াত হন পরিচালক বাসু চট্টোপাধ্যায়। তারপর দু’সপ্তাহও কাটেনি। ১৪ জুন গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)। গোটা ভারত তাঁর মৃত্যুতে যেন বাকরুদ্ধ হয়ে পড়ল। যে অভিনেতা ‘ছিঁছোড়ে’ ছবিতে আত্মহত্যার বিরুদ্ধে গিয়ে বেঁচে থাকার মন্ত্র দিয়েছিলেন, তিনি কিনা নিজেই আত্মহননের পথ বেছে নিলেন?

এখানেই শেষ নয়। এর মধ্যে আরও অনেক শিল্পীকে হারিয়েছে বলিউড। প্রয়াত হয়েছেন ‘ওয়াদা রাহা সনম’-এর গীতিকার আনোয়ার সাগর। ‘রিমঝিম ঘিরে সাওয়ন’, ‘কহিঁ দূর যব দিন ঢল যায়ে’-এর গীতিকার যোগেশ গৌরও চলে গিয়েছেন পৃথিবী ছেড়ে। অভিনেতা মোহিত বাঘেল, শচিন কুমার, কন্নড় অভিনেতা চিরঞ্জিবী সারজা-সহ অনেক শিল্পীরই মৃত্যু দেখল সিনেপ্রেমীরা। বলিউডে যেন অভিশাপ লেগেছে কারও। সবার মনেই ভয়, এরপর না জানি কী খারাপ খবর আসবে। এত দুঃসংবাদের মধ্যে তাই আর বছরটাকে পছন্দ নয় কারওর। সময়ের ঘেরাটোপ থেকে একে উপড়ে ফেলতে চাইছে সবাই। নেটদুনিয়া তাই ভরে গিয়েছে ‘#delete 2020’ হ্যাশট্যাগে।

তথ্য সুত্রঃ টুইটার ও সংবাদ প্রতিদিন